রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮:৫৯ অপরাহ্ন

তাহিরপুর সীমান্তে ‘ইত্যাদি’

তাহিরপুর সীমান্তে ‘ইত্যাদি’

এম.এ রাজ্জাক:  তাহিরপুর সীমান্ত থেকে ::   ইতিহাস, ঐতিহ্য, সভ্যতা, সংস্কৃতি, পর্যটন ও দর্শনীয় স্থানগুলোতে গিয়ে ইত্যাদি ধারণের ধারাবাহিকতায় এবারের পর্ব ধারণ করা হয়েছে সুনামগঞ্জের তাহিরপুর সীমান্তের ট্যাকেরঘাট শহীদ সিরাজ লেকে।

সৌন্দর্য্যময় লেকটির উত্তরে মেঘালয় পাহাড়, পূর্বে বারেকটিলা, দক্ষিণ শিমুল বাগান, পশ্চিমে বিশ্ব ঐতিহ্য টাঙ্গুয়া হাওর, জেলার মরমী কবি হাসার রাজা, দুরবীন শাহ, বাউল করিমসহ উল্লেখযোগ্য স্থাপনার বৈশিষ্ট্য নিয়ে নির্মিত হয়েছে এবারের ইত্যাদির মঞ্চ।

অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত দর্শক ছাড়াও হাজার হাজার মানুষ ছোট বড় টিলা, সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে উপভোগ করেন এবারের ইত্যাদি পর্বের দৃশ্যায়নের চিত্র।

ইত্যাদি রচনা, পরিচালনা ও উপস্থাপনা করেছেন এ অনুষ্টানের জনপ্রিয় হানিফ সংকেত। সোমবার রাতে ট্যাকেরঘাট শহীদ সিরাজ লেকে হাজার হাজার দর্শকদের উপস্থিতিতে ধারণ করা হয়েছে ইত্যাদির এই পর্বটি।

এবার সুনামগঞ্জের ইতিহাস, ঐতিহ্য এবং সিরাজ লেকের ওপর তথ্যসমৃদ্ধ প্রতিবেদনের পাশাপাশি উপস্থাপনা হয়েছে লাউড় রাজ্য, টাঙ্গুয়া ওপর অনুসন্ধানী প্রতিবেদন। এবারের পর্বে মূল গান ছিল “হাওড় বাওড় পাহাড় নদী, মনু মিয়ার রক্তি নদী, সুনামগঞ্জের সুনাম রে ভাই শুনাতে চাই”। গানটি পরিবেশন করেন স্থানীয় স্কুল কলেজ পড়ুয়া নৃত্য শিল্পীরা। মঞ্চে মরমী কবি দেওয়ান হাসান রাজা, দূরবীন শাহ, করিমের তিনটি গান পরিবেশন করেন, সিলেট অঞ্চলের কৃতী শিল্পী শ্রভ্রদেব এবং সেলিম চৌধুরী।

দর্শক পর্বে সুনামগঞ্জ ঘিরে প্রশ্নোত্তরের মাধ্যমে হাজার হাজার দর্শকের মাঝ থেকে দুইজন পুরুষ একজন নারীকে নির্বাচন করা হয়। তারা অভিনয়ের মাধ্যমে নির্বাচনে কিভাবে ভোট সংগ্রহ করতে হয় তার উপর একটি প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন। তিন জনের মধ্যে অভিনয়ে তাহিরপুর উপজেলার সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান রিয়াজ উদ্দিন খন্দকার লিটন প্রথম হন এবং জামালগঞ্জের ব্যবসায়ী আকবর ও নারী এক ব্যাংক কর্মকর্তা দ্বিতীয় হন। তাদেরকে কেয়া গ্রুপ থেকে পুরুষ্কৃত করা হয়। এই অনুষ্টানটি আগামী ৩০ নভেম্বর শুক্রবার রাত ৮টার বাংলা সংবাদের পর বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডে প্রচার করা হবে।

ইত্যাদি দৃশ্যায়নের সময় উপস্থিত ছিলেন, সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক আব্দুল আহাদ, সিলেট বিজিবি সেক্টর কমান্ডার, কর্ণেল মুহাম্মদ শহিদুল ইসলাম,পিএসসি, সুনামগঞ্জ পুলিশ সুপার বরকতউল্লাহ খানঁ, সুনামগঞ্জ ২৮ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে.কর্ণেল মাকসুদুল হক, তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পূর্ণেন্দু দেব, জেলা পরিষদ প্যানেল চেয়ারম্যান আবুল হোসেন খানঁ, তাহিরপুর থানার ওসি নন্দন কান্তি ধর,সহ সাংবাদিক, মুক্তিযোদ্ধা, ব্যবসায়ী সহ স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তারা।

শহীদ সিরাজী লেকে ইত্যাদি অনুষ্ঠান ধারণের অভিজ্ঞতা কেমন ছিল? জানতে চাইলে হানিফ সংকেত বলেন, ‘যেহেতু ইতিহাস, ঐতিহ্য, সভ্যতা, সংস্কৃতি, পর্যটন ও দর্শনীয় স্থানগুলোতে গিয়ে ইত্যাদি ধারণ করা হয়, তাই স্থান নির্বাচনের সময় আমরা খোঁজখবর নিয়ে এই লেকটি আমরা চয়েজ করি।

পরে জেলা প্রশাসন, উপজেলা প্রশাসন এবং বিজিবির সহযোগীতায় অনুষ্টানটি সুন্দর ভাবে সম্পূর্ণ করতে পেরেছি। তিনি বলেন ইত্যাদির এ পর্বটি ব্যতিক্রম হবে, সারা বিশ্বের দর্শকরা এ পর্বটি উপভোগ করবে।

সিলেটভিউ২৪


আপনার এ্যাড দিন

ফটো গ্যালালি

Islamic Vedio

বিজ্ঞাপন ভিডিও এ্যাড




© All rights reserved © 2018 angina24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com